Sunday , 17 November 2019
এই মাত্র পাওয়া
Home » অপরাধ » গাইবান্ধায় স্থনকাটা আজাদুল গ্রেফতার

গাইবান্ধায় স্থনকাটা আজাদুল গ্রেফতার

এইচ.আর .হিরু.গাইবান্ধাঃ
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার রামপুরা স্কুলের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী কর্তৃক একাধিক ছেলের প্রেমের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়ার অপরাধে এক স্কুলের সিনিয়র সহপাঠী ও তাদের বখাটে বন্ধুরা গত ২২ আগষ্ট হরিরামপুর ইউপির যাদুর বাজারে সেলুনে বসে সিদ্ধান্ত নেয় যেহেতু মেয়েটি তাদের প্রেমে সাড়া দিচ্ছেনা তাই তাকে মজা দেখাবে।সেই অভিপ্রায়ে সকল বখাটে বন্ধুরা ঐ সেলুন হতে একটি ক্ষুর ২ শ টাকার বিনিময়ে বাকিতে কিনে।
এরপর সব বখাটে বন্ধুরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ২৫ আগষ্ট ২০১৯ খ্রিঃ দিবাগত রাত অনুঃ ২টার সময় বখাটেরা মেয়েটির বাড়ির আশেপাশে অবস্থান নেয়।
ঐ সময় মেয়েটি তার ছোট ভাইয়ের সাথে ইটের ঘরের বিছানায় ঘুমাচ্ছিলো তখন কষাই আজাদুল ঐ ইটের ঘরের বিছানা বরাবর একটি ছিদ্র দিয়ে হাত ঢুকিয়ে ঘুমন্ত মেয়েটির বুকে ক্ষুর দিয়ে আঘাত করে নৃশংস ভাবে স্হন কেটে জখম করে।

এরপর সব বখাটেরা পালিয়ে যায়। মেয়েটির চিৎকারে পরিবারের সদস্যরা এসে রক্তাক্ত জখম দেখে হতবাক হয়ে পরে। এবং ঐ রাতেই মেয়েটিকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ভর্তি করায়।
এই ঘটনার পরপর থানায় এজাহার নামীয় ২ জন ও অপরিচিত ৩/৪ কে আসামি করে মামলা রুজু হলে থানা পুলিশ সাড়াশি অভিযান চালিয়ে প্রথমে এজাহার নামীয় ১নং আসামি আশিক কে গ্রেপ্তার করে। এরপর ক্ষুর বিক্রেতা নারায়ন ও বখাটে মেরাজ কে গ্রেপ্তার পূর্বক আদালতে সোপর্দ করে।
এবং ঘটনার পর হতে পলাতক আজাদুল কে গ্রেপ্তার করার জন্য একাধিক অভিযান চালিয়ে ব্যর্থ হবার পর অবশেষে গত ৪ আগষ্ট সদর থানার তুলশীঘাট এলাকা হতে কষাই আজাদুল কে গ্রেপ্তার করে। এরপর আজাদুল কে নিয়ে অভিযান চালিয়ে তার বাড়ির টেবিলের ড্রয়ার থেকে সেই ক্ষুর টি তার দেখানো মতে উদ্ধার করা হয়। অভিযান শেষে কুখ্যাত আজাদুল কে ৫ আগষ্ট গোবিন্দগঞ্জ চৌকি আদালতে হাজির করলে সে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।
পুলিশ সুপার,গাইবান্ধা’র সরাসরি দিকনির্দেশনায় গোবিন্দগঞ্জ থানা সহ জেলার উর্ধতন কর্মকর্তা বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্বের সাথে নেয় আর এটায় গাইবান্ধা জেলা পুলিশের স্পেশালিটি।

Leave a Reply